লাগাতার বৃষ্টি! গঙ্গারামপুরের চালুনে জলের স্রোতে তলিয়ে গেল অস্থায়ী ব্রীজ

0
508

লাগাতার বৃষ্টি! গঙ্গারামপুরের চালুনে জলের স্রোতে তলিয়ে গেল অস্থায়ী ব্রীজ। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন পাচটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষের

বালুরঘাট ও গঙ্গারামপুর ৭ জুলাই ——— লাগাতার বৃষ্টি, জলের তোড়ে ভেঙ্গে গেল অস্থায়ী ব্রিজ। বিচ্ছিন্ন যোগাযোগ ব্যবস্থা। সমস্যায় পাঁচটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। শনিবার রাতে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর ব্লকের চালুন গ্রাম পঞ্চায়েতের শঙ্করপুর এলাকায়। ঘটনাকে ঘিরে রবিবার সকাল থেকে রীতিমতো আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে। জানা গেছে, চালুন গ্রাম পঞ্চায়েতের আশ্রম বাজার সংলগ্ন এলাকায় আশ্রম বাজার থেকে নেহেম্বা অশোকগ্রাম যাওয়ার মুল রাস্তায় একটি নতুন ব্রিজ তৈরীর কাজ চলছিল। যে কারনেই এলাকার মানুষের যাতাযাতের জন্য ছোট একটি অস্থায়ী ব্রীজ তৈরী করা হয়েছিল। ওইদিন রাতে লাগাতার বৃষ্টির জেরে খাড়ির জল বাড়তে থাকায় প্রবল জলছ্বাসের সৃষ্টি হয় অস্থায়ী ওই ব্রীজে। আর যে কারনেই ভেঙে তলিয়ে যায় সাধারণ মানুষের চলাচলের একমাত্র ওই ব্রীজটি। এদিন সকাল থেকে যে কারনেই বিপাকে পড়েন এলাকার সাধারণ মানুষেরা। আর যাকে ঘিরেই রীতিমতো আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে ওই এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, শঙ্করপুর এলাকায় যোগাযোগের একমাত্র অস্থায়ী ব্রীজটি ধসে যাওয়ার কারনে জনসংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে এলাকায়। আর যার জেরে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন অশোকগ্রাম, চালুন, শংকরপুর, নেহেম্বা, উদয় সহ পাচ ছয়টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ । শুধু তাই নয় জলপ্লাবিত হয়ে চরম সমস্যা তৈরি হয়েছে ওই এলাকায়।

এলাকার বাসিন্দা তথা পঞ্চায়েতের বিরোধী দলনেতা সুবিন কুজুর বলেন, রাস্তার কাজ চলার জন্য ওই এলাকায় একটি অস্থায়ী ব্রিজ তৈরি করা হয়েছিল। যা প্রবল জলস্রোতে তলিয়ে গিয়ে এলাকার চার পাচটি গ্রামের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়েছে। জলপ্লাবিত হতে শুরু করেছে এলাকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here