মায়ের চিকিৎসার অজুহাত দিয়ে সহকর্মীর সাথে আর্থিক প্রতারণা! শ্রীঘরে বালুরঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুমন চ্যাটার্জি

0
253

মায়ের চিকিৎসার অজুহাত দিয়ে সহকর্মীর সাথে আর্থিক প্রতারণা! শ্রীঘরে বালুরঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সুমন চ্যাটার্জি

পিন্টু কুন্ডু, বালুরঘাট, ২৪ মে ——- মা-এর চিকিৎসার অজুহাত দিয়ে সহকর্মীর সাথে আর্থিক প্রতারণা করার অভিযোগ এক স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে। চম্পট স্কুল শিক্ষককে শিলিগুড়ি থেকে গ্রেপ্তার বালুরঘাট থানার পুলিশের। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি বালুরঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের। পুলিশ জানিয়েছে ওই অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম সুমন চ্যাটার্জি। পেশায় প্রাথমিক শিক্ষক সুমনের বাড়ি দক্ষিণ দিনাজপুরের কুমারগঞ্জে। যার বিরুদ্ধেই প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন বালুরঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক অভিজিৎ চন্দ। তার অভিযোগ ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে সুমন চ্যাটার্জি নামের ওই শিক্ষক তার মা-কে স্কুলে নিয়ে এসে তার কাছে টাকা ধার চান। চিকিৎসার কথা বলায় কিছুটা মানবিকতা বোধ থেকে তড়িঘড়ি সহকর্মী সুমন চ্যাটার্জি কে ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা তুলে দেন বলেও অভিযোগ। এরপরে প্রতিশ্রুতির পর প্রতিশ্রুতি দিলেও অভিজিৎ চন্দ ফেরত পাননি তার টাকা। এদিকে সহকর্মীর টাকা ফেরত না দিয়ে কুমারগঞ্জে রাতারাতি বাড়ি বিক্রি করে গা ঢাকা দেন অভিযুক্ত শিক্ষক সুমন চ্যাটার্জি বলেও অভিযোগ। এরপরেই সহকর্মী সুমন চ্যাটার্জি-র বিরুদ্ধে বালুরঘাট থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন অভিজিৎ চন্দ। যে অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার শিলিগুড়ি থেকে ওই অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষক সুমন চ্যাটার্জি-কে গ্রেপ্তার করে বালুরঘাট থানার পুলিশ। শুক্রবার তাকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা আদালতে পেশ করা হলে বিচারক ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

স্কুল শিক্ষক অভিজিৎ চন্দ বলেন, মায়ের চিকিৎসার নাম করে তার কাছ থেকে টাকা নিয়ে আর্থিক প্রতারণা করেছে সুমন। যার বিরুদ্ধেই পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here