সুকান্ত হারছে,তাই ভুল কথা বলছে,গঙ্গারামপুরে বিপ্লব মিত্রের সমর্থনে বিরাট রোডশো করতে এসে লাখো মানুষের ভিড়ে এমনি মন্তব্য করলেন প্রাক্তন সাংসদ তথা অভিনেতা দেব

0
223

সুকান্ত হারছে,তাই ভুল কথা বলছে,গঙ্গারামপুরে বিপ্লব মিত্রের সমর্থনে বিরাট রোডশো করতে এসে লাখো মানুষের ভিড়ে এমনি মন্তব্য করলেন প্রাক্তন সাংসদ তথা অভিনেতা দেব-দেব বিজেপিকে কটাক্ষ করেন সৌজন্যের রাজনীতি জানে না বলেও দেবের রোডশোতে দেখতে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের ভিড় হলো গঙ্গারামপুর ২৪এপ্রিল দক্ষিণ দিনাজপুর।সুকান্ত হারছে জেনেই ভুল কথা বলছে ,বললেন বিপ্লব ও দেব।সুকান্তের চায়ের নিমন্ত্রণ ফিরিয়ে দিয়ে তৃণমূল সাংসদ দেব জানালেন ,বিপ্লবদা ভোটে জেতার পরে আগে আমি বিপ্লবদার বাড়িতে গিয়ে খেয়ে বিপ্লবদাকে সঙ্গে করে বালুরঘাটে সুকান্ত মজুমদারের বাড়িতে চা খেয়ে হারার শুভেচ্ছা জানিয়ে আসব।দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ৬নম্বর বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বিপ্লব মিত্রের সমর্থনে গঙ্গারামপুর শহরে রোডশো করতে এসে একটি হোটেলে সাংবাদিক বৈঠক করে এমনই মন্তব্য করেন অভিনেতা তথা তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ দীপক অধিকারী ওরফে বাংলা চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম নায়ক দেব।প্রায় লক্ষাধিক তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের ভিড়ে গঙ্গারামপুরের বিডিও অফিস মোড় থেকে হাইরোড পর্যন্ত রোডশোতে তৃণমূল প্রার্থী বিপ্লব মিত্রকে দু’নম্বর ইভিএম বোতাম টিপে তৃণমূল কর্মীদেরকে ভোট দেওয়ার আবেদন করেন।গঙ্গারামপুর শহরে ব্যাপক আলোড়ন পরে দেবের রোডশোকে ঘিরে। মঙ্গলবার দুপুরে তৃণমূল প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণীর সমর্থনে রায়গঞ্জের সভা করতে আসেন প্রাক্তন তৃণমূল সাংসদ তথা বাংলা সিনেমা জগতের অন্যতম অভিনেতা দীপক অধিকারী ওরফে দেব।সেখানে তিনি বলেন, সুকান্তদা খুব ভালো মনের মানুষ ,আমরা একে অন্য দল করলেও তিনি মানুষ হিসেবে ভালো।এরপরেই তৃণমূল প্রার্থী তথা প্রাক্তন সাংসদ, বাংলা সিনেমা জগতের অন্যতম অভিনেতা দেবের এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপি একাধিক ফেসবুকে পোস্ট করে সুকান্ত মজুমদারকে নাকি জয়ের ব্যাপারে অভিনেতা তৃণমূল প্রার্থী দেব সুকান্তকে আশীর্বাদ করেছেন বলে বিজেপি আইটিসেল মন্তব্য করে ফেসবুক পোস্ট করেন। বুধবার দুপুরে ৬নম্বর বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তথা জেলার ভূমিপুত্র বিপ্লব মিত্রের সমর্থনে গঙ্গারামপুরে এক মেঘা রোডশো করতে আসেন প্রাক্তন সাংসদ তথা বাংলা সিনেমা জগতের অন্যতম অভিনেতা দীপক কুমার অধিকারী ওরফে দেব। দেড়টার মধ্যেই রায়গঞ্জ থেকে হেলিকপ্টার কপালে করে গঙ্গারামপুর স্টেডিয়ামে নামেন বাংলার এই অভিনেতা তথা তৃণমূল প্রার্থী দীপক কুমার অধিকারী ওরফে দেব।সেখানে গঙ্গারামপুরের বাসস্ট্যান্ডে একটি হোটেলের সাংবাদিকদের সামনে হাজির হয়ে দেব জানান, বিজেপি সৌজন্যের রাজনীতি বোঝেনা।ব্যক্তিগতভাবে সুকান্তদাকে আমি চিনি।আমি বলেছি তিনি ভালো মানুষ। তার মানে এই নয় যে, তিনি ভোটে জিতছেন। সুকান্ত দাকে ব্যক্তিগতভাবে হোয়াটসঅ্যাপে ও তাদের আইটি সেল কেউ বিষয়টি জানানো হয়েছে।সুকান্তদা হারবে সেই আতঙ্কেই এমন ভুল প্রচার করেছে আমার বক্তব্যকে ঘিরে।সুকান্ত মজুমদার আপনাকে চাইপে চর্চায় চা খাওয়ার নেমন্তন জানিয়েছেন, সাংবাদিকরা প্রশ্ন করতেই দেব জানান,বিপ্লবদা ভোটে জিতে যাবার পরে তার বাড়িতে আগে খেয়ে সুকান্ত মজুমদারের বাড়িতে বিপ্লবদাকে সঙ্গে নিয়ে গিয়ে চা খেয়ে হারার শুভেচ্ছা জানিয়ে আসব। এদিন দুপুর থেকে গঙ্গারামপুর হাইরোডে বিডিও অফিসমোড় থেকে কালিতলা পর্যন্ত তৃণমূল কংগ্রেসের প্রায় লক্ষাদিক তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থক তাদের প্রাক্তন সাংসদ তথা বাংলা সিনেমা জগতের অন্যতম অভিনেত্রা দীপক অধিকারী দেবকে দেখতে ভিড় জমিয়ে ছিলেন। দীপক অধিকারী বাসস্ট্যান্ডের একটি হোটেল থেকে হুট খোলা গাড়িতে করে বিডিও অফিস অফিস মোড় থেকে গঙ্গারামপুর হাইরোড পর্যন্ত সমস্ত মানুষজনকে হাত নেড়ে বিপ্লব মিত্রকে দু নম্বর বোতাম টিপে ২৬ এপ্রিল ঘাসের উপর জোড়া ফুল চিহ্নে ভোট দেওয়ার আবেদন করেন। সঙ্গে সঙ্গে সমস্ত তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা বিরাট আকারে চিৎকার করে জানান ভোট বিপ্লবদাকে দেব। জয়লাভ করবে আমাদের প্রার্থীই।এরপরেই বিরাট আকারে মেগা রোডশো করে দীপক অধিকারী ওরফে দেব গঙ্গারামপুর স্টেডিয়ামে ফিরে যান। সেখান থেকে হেলিকপ্টার চাপারে করে তিনি কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। এদিন শুধু বাংলা সিনেমা জগতের অভিনেতাদেবকে দেখতেই নয়, তাদের প্রিয় প্রার্থী তথা জেলা তৃণমূলের ভূমিপুত্র ও বর্তমান পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অন্যতম মন্ত্রী বিপ্লব মিত্রকে দুহাত তুলে তারা আশীর্বাদ করবেন বলেও এদিনের দেবের রোডশো থেকেই তা প্রমাণ হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here