সিবিআই এর হাতে গ্রেপ্তার আরো 4 ব্যক্তি। কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ বিধানসভার অন্তর্গত চিলাখানা এলাকায় ভোট-পরবর্তী হিংসায় মৃত্যু হয় তৃণমূল কর্মী সাইনুল ইসলামের।

0
246

কোচবিহার:-সিবিআই হাতে গ্রেপ্তার আরো 4 ব্যক্তি। কোচবিহার জেলার তুফানগঞ্জ বিধানসভার অন্তর্গত চিলাখানা এলাকায় ভোট-পরবর্তী হিংসায় মৃত্যু হয় তৃণমূল কর্মী সাইনুল ইসলামের। এই ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করে সিবিআই । এদের মধ্যে রয়েছেন ঈশ্বর দাস, মিহির চন্দ, গোবিন্দ দাস ও ঈশ্বর দাস । এদের মধ্যে তিনজন বিজেপি কর্মী বলেই পরিচিত । এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে । ভোট পরবর্তী হিংসায় কোচবিহার জেলায় সবথেকে বেশি সন্ত্রাস হয়েছে । হাইকোর্টের নির্দেশে সিবিআর দল গত কয়েকদিন ধরেই কোচবিহার জেলার ভোট-পরবর্তী ইনশা গ্রস্থ বিভিন্ন এলাকা থেকে শুরু করে যে সমস্ত রাজনৈতিক কর্মীরা মারা গিয়েছেন তাদের বাড়ি পরিদর্শন করেছেন । গত কয়েকদিন আগে দিনহাটা থেকে একজনকে গ্রেফতার করেছে সিবিআই । এবার তুফানগঞ্জ এর ছিলাখানা এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করল সিবিআই প্রতিনিধি দল । তবে এই ঘটনা নিয়ে কোচবিহার জেলা বিজেপির সভাপতি তথা তুফানগঞ্জ বিধানসভার বিধায়ক মালতি রাভা রায় বলেন, তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল এর মৃত্যু হয়েছিল ওই তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী । তবে এই ঘটনা বিজেপি কর্মীদের নাম জড়িয়ে দেওয়া হয় । সিবিআই এর উপর বিজেপির পূর্ণ আস্থা রয়েছে । সঠিক তদন্ত উঠে আসুক এটাই আমরা চাই ।


অন্যদিকে এই বিষয় নিয়ে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতা আবদুল জলিল আহমেদ বলেন, সিবিআই সঠিকভাবে কাজ করুক এটাই আমরা চাই ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here