দমদমা অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির পক্ষে ঈদ উৎসবকে সামনে রেখে 400 জন দুস্থ সংখ্যালঘু মানুষজনদের মধ্যে বস্ত্র দান করা হলো

0
173

দমদমা অঞ্চল তৃনমূল কংগ্রেস কমিটির তরফ এ ঈদ উৎসবকে সামনে রেখে কালদিঘি বটতলাতে 400 জন গরিব মানুষদের হাতে ব্স্ত তুলে দিলেন তৃণমূল নেতারা। খুশি হয়েছেন সকলেই।

শীতল চক্রবর্তী , গঙ্গারামপুর ,12 ই মে, দক্ষিণ দিনাজপুর :অঞ্চল তৃণমুল কংগ্রেস কমিটির তরফে ঈদ উৎসবকে সামনে রেখে গরীব দুঃস্থ মুসলিম ৪০০জন মানুষজনের মধ্য বস্তদান করা হল।বুধবার বিকেলে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর ব্লকের দমদমা অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির তরফে
কালদীঘি বটতলাতে তৃনমূলের দলীয় কার্যালয়ে এমন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।সেখানে জেলা পরিষদের সহকারি সভাধপতি,জেলা তৃণমূল নেতা ,এলাকার প্রধান সহ অঞ্চল তৃণমূল নেতারা উপস্থিত ছিলেন। ঈদের অনুষ্ঠানের মধ্যে এমন সহযোগিতা পেয়ে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষজন। সমস্ত করেনা বিধি মেনেই এমন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ছে।

গঙ্গারামপুর ব্লকের দমদমা অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির তরফ থেকে প্রতিটি উৎসবের সময় সকল গরিব মানুষদের কে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে থাকে এলাকার তৃণমূল কংগ্রেস। শুক্রবার রয়েছে সংখ্যালঘু সম্প্রদায় মানুষজনদের বড় উৎসব ঈদ। তাই এলাকার দুস্ত সংখ্যালঘু গরিব মানুষদের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য কালদিঘি বটতলাতে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয় সমস্ত রকমের কবি মেনে কয়েক জনের হাতে বস্ত্র তুলে দেওয়া হয়। এরপর এই তৃণমূল নেতৃত্বের তরফের বাকি বস্তুগুলি দুষ্ট মানুষজনদের বাড়িতে গিয়ে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। বস্তুগুলি তুলে দেন জেলা পরিষদের সহকারি সভাধিপতি ললিতা টিজ্ঞা, কালদিঘি এলাকার বাসিন্দা তথা জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পাদক তথা সমাজসেবী আনন্দ দাস, সেখানে দমদমা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কার্তিক সরকার, শহর অঞ্চলের একাধিক তৃণমূল নেতারা উপস্থিত ছিলেন

 জেলা পরিষদের সহকারি সভাধিপতি ললিতা জানিয়েছেন, সব উৎসবে যেন মানুষজন আনন্দের সঙ্গে দিনটি পালন করতে পারে তার জন্য এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কোভিদ বিন সমস্ত কাজ করা হয়েছে।

জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পাদক আনন্দ দাস জানিয়েছেন, প্রত্যেকটি অনুষ্ঠানেই প্রতিটি অনুষ্ঠানেই দুঃস্থ মানুষদের পাশে আমরা সব সময় দাঁড়ায়। এবারও কোভিদ বিধি মেনেই দুঃস্থ সংখ্যালঘু মানুষজনের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যা আগামী দিনেও না হবে।
এলাকার দমদমা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান কার্তিক সরকার জানিয়েছেন ,এমন অনুষ্ঠানে এসে ভালো লাগছে। তাছাড়া এমন কাজ আমরা সব সময় করে দেওয়ার চেষ্টা করব উৎসব এর সময়গুলিতে।
উৎসবের মুখে এমন সহযোগিতা পেয়ে দমদম অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস কমিটির তরফ সে এমন সহযোগিতা পাওয়ার পরে সংখ্যালঘু মানুষজনের খুশি হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here