শেষমেষ নাটকীয় ভাবে বাতিল হয়ে গেল কোচবিহার 1 নম্বর ব্লকের হাড়িভাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থার তলবী সভা

0
177

কোচবিহার:-

শেষমেষ নাটকীয় ভাবে বাতিল হয়ে গেল কোচবিহার 1 নম্বর ব্লকের হাড়িভাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থার তলবী সভা । প্রধান জাহাঙ্গীর আলম ইস্তফা দেওয়ার ফলে এই এই অনাস্থা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে । বেআইনি ভাবে এই তলবী বাতিল করার অভিযোগ তুলে গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তর থেকে বেরিয়ে বিক্ষোভ দেখান ।বিক্ষোভ কে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি হয় । যদিও পরে বিষয়টি আসে ।তবে এই নিয়ে আইনি লড়াই যাওয়ার কথা বলে অনাস্থা আনা গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যরা।দলের বিরুদ্ধে গিয়ে অনাস্থা এনেছেন তাদের ব্যবস্থা গ্রহণ করার কথা বলেন ।
জানিয়ে রাখি ইতি মধ্যে জেলা তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব সাফ জানিয়ে দিয়েছেন কোন গ্রাম পঞ্চায়েতে অনাস্থা না চলবে না। দলের বিরুদ্ধে গিয়েই কোচবিহার 1 নম্বর ব্লকের হাড়িভাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের 11 জন পঞ্চায়েত সদস্য গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনেন । এই অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে সোমবার গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তরের তলবি সভা ছিল । তালবি সভাকে কেন্দ্র করে সকাল থেকে এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়। তলবি সভা নিয়ম অনুযায়ী একজন গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য তারা সময়মতো গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তরের আসেন। সকাল দশটায় তারা গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তরের এসে পৌঁছান। প্রায় এক ঘন্টার পর বিডিও অফিস থেকে 2জন অধিকারী পুলিশের সাথে গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তরে পৌঁছান ।কিচুখন পর সেখান থেকে অধিকারীরা বাইরে বেরিয়ে চলে আসেন ।তার পিছনে অনস্থা নিয়ে আসা 11জন গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য তার তাদের গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখান। পঞ্চায়েত সদস্যরা অভিযোগ করেন যে তাদের অন্ধকার রেখে এই কাজ করা হয়েছে। প্রধান ইস্টিফা দিয়েছে তার কোন কাগজ তারা দেখাতে পারেনি। আমরা এর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ যাব ।তবে দলের নির্দেশ অমান্য করে তারা কেন এই কাজ করেছেন এই বিষয় নিয়ে তারা বলেন ,দলের সিদ্ধান্ত তারা মেনে নেবেন ।তবে তারা দুর্নীতি বিরুদ্ধে লড়াই করছি ।
এই বিষয় জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি গিরীন্দ্রনাথ বর্মন বলেন ,প্রধান পদত্যাগ করা অনাস্থা বাতিল হয় গিয়েছে ।যারা দলের নির্দেশ অমান্য করে এই অনাস্থা এনেছেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here