পোস্ত দানার উপর ক্ষুদ্রতম জাতীয় পতাকা এঁকে নজির গড়ল এক যুবক

0
302

রায়গঞ্জ :-স্বাধীনতা দিবসের দিনে রায়গঞ্জ শহরের আকাশে একদিকে যখন সর্বোচ্চ এবং বিশালাকার জাতীয় পতাকা উড়ছে তখন শহরেরই অন্য প্রান্তে পোস্ত দানার উপর ক্ষুদ্রতম জাতীয় পতাকা এঁকে নজির গড়ল এক যুবক। রায়গঞ্জ শহরের কসবা এলাকার বাসিন্দা বলরাম সরকারের তৈরি ক্ষুদ্রতম এই জাতীয় পতাকা নিয়ে রীতিমতো কৌতুহ্ল সৃষ্টি হয়েছে রায়গঞ্জ শহরজুড়ে। তাঁর এই সৃষ্টি ইতিমধ্যেই ইন্ডিয়া বুক রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছে। যদিও বলরাম তাঁর কৃতিত্বকে লোকচক্ষুর অন্তরালেই রাখতে চেয়েছিলেন। ফেসবুকে একটি ছোট্ট পোস্ট দেখার পর সাংবাদিকেরা সন্ধ্যায় তাঁর বাড়িতে গিয়ে একটি পোস্ত দানার উপর জাতীয় পতাকা আঁকার কৌশল ক্যামেরাবন্দী করেছেন।

রায়গঞ্জ শহরের কসবা মোড় এলাকার বাসিন্দা বলরাম সরকার বর্তমানে ডি এল এড পড়াশুনা করছেন। ছোট থেকেই কোনও আর্ট স্কুলে বা অন্য কোনও প্রশিক্ষন কেন্দ্রে অঙ্কন প্রশিক্ষন নেননি তিনি। ইউ টিউবে বা সোস্যাল মিডিয়ায় দেখে নানান সময় হাতের কাজ করতেন তিনি। গত জুন মাস নাগাদ কয়েকজন বন্ধুবান্ধবের তৈরি করা জাতীয় পতাকার ছবি দেখে উৎসাহিত হন বলরাম। বন্ধুবান্ধবরা কখনো চিঁড়ে বা কখনও চিনির দানার উপর ভারতের মানচিত্র বা জাতীয় পতাকার ছবি এঁকেছিলেন। সেই বিষয়টি দেখার পরই বলরাম বাবু নিজের দক্ষতা দেখানোর জন্য চেষ্টা শুরু করেন। এরপরই একটি পোস্ত দানার উপর ভারতের জাতীয় পতাকা আঁকার চিন্তাভাবনা শুরু করেন তিনি

। জুলাই মাসের শেষ দিকে ১/১ মিলিমিটার পোস্ত দানার উপর খালিচোখেই ভারতবর্ষের জাতীয় পতাকা আঁকাতে সক্ষম হন তিনি৷ মাইক্রো শিল্পী বলরাম চায়নি বিষয়টি প্রচারের আলোয় আসুক। গোপনেই রেখেছিলেন তাঁর দক্ষতাকে। দেশের প্রতি ভালোবাসার টানেই তাঁর এই শিল্প ভাবনা। সবার অলক্ষ্যেই ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে তাঁর আঁকা তিনি পাঠিয়েছিলেন এবং সেখান থেকে ভারতের ক্ষুদ্রতম জাতীয় পতাকা বলে স্বীকৃতিও পেয়েছেন তিনি। দরিদ্র পরিবারের সন্তানের এমন কৃতিত্বে খুশী বলরামের পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here